শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪, ০৮:৪০ অপরাহ্ন

রবির ফ্লোর প্রত্যাহারের প্রথম দিনেই ক্রেতা শূন্য

রবির ফ্লোর প্রত্যাহারের প্রথম দিনেই ক্রেতা শূন্য

আজকের পুঁজিবাজার:পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত টেলিযোগাযোগ খাতের বহুজাতিক কোম্পানি রবি আজিয়াটা শেয়ারের ওপর আরোপ করা ফ্লোর প্রাইস উঠে গেছে। আজ মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) থেকে কোম্পানিটির শেয়ার ফ্লোর প্রাইস মুক্ত হয়ে স্বাভাবিক লেনদেনে ফিরেছে।

তবে ফ্লোর প্রত্যাহারের প্রথম দিনের লেনদেনের শুরুতেই আজ কোম্পানিটির শেয়ার সার্কিট ব্রেকারের সর্বনিন্ম দামে ক্রেতাশুন্য হয়ে যায়।তবেলেনদেনের শুরু থেকেই কোম্পানিটির বড় লেনদেন হচ্ছে।

শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নির্দেশনা অনুযায়ী আজ থেকে কোম্পানিটির শেয়ার সার্কিট ব্রেকারের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন সীমা অনুযায়ী লেনদেন করছে।

এর আগে গত ২৯ ফেব্রুয়ারি ডিএসই ও সিএসইর ওয়েবসাইটে গ্রামীণফোন লিমিটেডের শেয়ারের ওপর আরোপ করা ফ্লোর প্রাইস তুলে নেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়।

এদিকে, গত ৩ মার্চ থেকে ব্রিটিশ অ্যামেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ কোম্পানি-বিএটিবিসির শেয়ার সার্কিট ব্রেকারের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন সীমা অনুযায়ী লেনদেন শুরু করেছে।

গ্রামীণফোন, বিএটিবিসি ও রবি আজিয়াটার শেয়ার রেকর্ড ডেটের পর ফ্লোর প্রাইস প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে বলে গত ৬ ফেব্রুয়ারি এক নির্দেশনায় জানায় বিএসইসি।

ওই নির্দেশনা অনুযায়ী সোমবার (১৮ মার্চ) রবি আজিয়াটার ছিল রেকর্ড ডেট। সে হিসেবে আগামী মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) থেকে কোম্পানির শেয়ারে ফ্লোর প্রাইস বহাল থাকছে না।

এর আগে, গত ৬ ফেব্রুয়ারি ৩টি কোম্পানি ও গত ২২ জানুয়ারি ২৩টির কোম্পানির ফ্লোর প্রাইস তুলে নেয় বিএসইসি। তার আগে গত ১৮ জানুয়ারি ৩৫টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড বাদে অন্যান্য সব কোম্পানির ওপর থেকে ফ্লোর প্রাইস তুলে নেওয়া হয়।

বর্তমানে ৬টি কোম্পানির শেয়ার ফ্লোর প্রাইসে লেনদেন করছে। কোম্পানিগুলো হলো- বেক্সিমকো, বিএসআরএম, ইসলামী ব্যাংক, কেপিসিএল, মেঘনা পেট্রোলিয়াম ও শাহজিবাজার পাওয়ার।

প্রসঙ্গত, বৈশ্বিক সংকটের কারণে শেয়ারবাজারে ধারাবাহিক পতন রোধে প্রথমবার ২০২০ সালের ১৯ মার্চ ফ্লোর প্রাইস আরোপ করা হয়, যা পুরোপুরি তুলে নেওয়া হয় ২০২১ সালের ১৭ জুলাই।

এরপর ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাবে ২০২২ সালের ২৮ জুলাই দ্বিতীয় দফায় সব শেয়ারের দরে ফ্লোর প্রাইস আরোপ করে সংস্থাটি। পরবর্তীতে ওই বছরের ২১ ডিসেম্বর ১৬৭ শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড থেকে ফ্লোর প্রাইস উঠিয়ে দেওয়া হয়।

কিন্তু, প্রতিদিন একটি-দুটি শেয়ার কেনাবেচার বিপরীতে এক শতাংশ হারে দর কমতে থাকায় ২০২২ সালের ১ মার্চ তৃতীয় দফায় ফের ১৬৭ শেয়ারে ফ্লোর প্রাইস আরোপ করে বিএসইসি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2023 ajkerpujibazar.com
Design & Developed by BD IT HOST